সংগঠন সংবাদ

আন্দোলন

আমীরে জামা‘আতের ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ সফর

গত ১৮ই জানুয়ারী সোমবার রাত ১১-টা ২০ মিনিটে পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনযোগে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিব হাদীছ ফাউন্ডেশনের ম্যানেজার আব্দুল বারীকে সাথে নিয়ে হঠাৎ যরূরী প্রয়োজনে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পরদিন সকাল সাড়ে ৫-টায় কমলাপুর স্টেশনে পেঁŠছলে সেখানে তাঁকে অভ্যর্থনা জানান ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর অর্থ সম্পাদক কাযী হারূনুর রশীদ। অতঃপর সকাল সাড়ে ৬-টায় তিনি বংশালস্থ হোটেল আল-রাজজাকে পৌঁছেন। সেখানে তাঁকে অভ্যর্থনা জানান যেলা ‘আন্দোলন’-এর দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ ফযলুল হক, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মুহাম্মাদ হাসান ও বংশাল এলাকা ‘আন্দোলন’-এর আহবায়ক জনাব আযীমুদ্দীন।

বংশাল, ঢাকা ১৯শে জানুয়ারী মঙ্গলবার : অদ্য বাদ মাগরিব বংশালস্থ যেলা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত দায়িত্বশীল বৈঠকে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’ ও ‘যুবসংঘে’র কর্মপরিষদ সদস্যদের সাথে বৈঠক করেন। এ সময়ে তিনি যেলা ও মহানগরীতে সংগঠনের কার্যক্রম ও দাওয়াতী কাজের খোঁজ-খবর নেন। তিনি বলেন, একটি সংগঠন বেঁচে থাকে তার আদর্শের উপর। আদর্শহীন সংগঠন লক্ষ্যহীন গাড়ীর মত। তিনি কর্মীদের দৃঢ়ভাবে আদর্শনিষ্ঠ হওয়ার জন্য নিয়মিতভাবে সংগঠনের সাহিত্য পাঠ করার আহবান জানান। সেই সাথে সংগঠনের দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক কর্মসূচীগুলি ‘কর্মপদ্ধতি’ অনুযায়ী যথাযথভাবে পালন করার পরামর্শ দেন।

মহিলা বৈঠক : একই দিন বাদ এশা বংশাল এলাকা ‘আন্দোলন’-এর আহবায়ক জনাব আযীমুদ্দীনের বাসায় অনুষ্ঠিত মহিলা বৈঠকে তিনি যোগদান করেন। বৈঠকে সমবেত মহিলাদের উদ্দেশ্যে তিনি বক্তব্য রাখেন ও তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। এসময় যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ আহসান, সহ-সভাপতি মুশাররফ হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক তাসলীম সরকার ও অর্থ সম্পাদক কাযী হারূনুর রশীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অতঃপর জনাব আযীমুদ্দীনের বাসায় আতিথেয়তা গ্রহণ শেষে রাত সাড়ে ১০-টায় তিনি হোটেলে ফিরে আসেন।

নাযিরাবাজার, ঢাকা ২০শে জানুয়ারী বুধবার : অদ্য বাদ ফজর নাযিরাবাজার আহলেহাদীছ জামে মসজিদে ছালাত শেষে ইমামের পঠিত আয়াত সমূহের উপর সংক্ষিপ্ত ‘দরস’ পেশ করেন মুহতারাম আমীরে জামা‘আত। অতঃপর মুছল্লীদের সাথে মুছাফাহা ও কুশল বিনিময় শেষে তিনি যেলা কার্যালয়ে গমন করেন। উল্লেখ্য যে, ফজরের ছালাত আদায়ের জন্য তিনি হোটেল থেকে মসজিদে আসেন।

অতঃপর অফিসে তিনি দায়িত্বশীলদের উদ্দেশ্যে ‘দরসে হাদীছ’ পেশ করেন। এরপর দুপুর ২-টায় তিনি নারায়ণগঞ্জের পূর্বাচলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন এবং বিকাল ৪-টায় সেখানে পৌঁছে ১৭ নং সিটি বাংলোতে এলাকাবাসীর আতিথেয়তা গ্রহণ করেন। অতঃপর পূর্বঘোষিত সুধী সমাবেশে যোগদান করেন।

সুধী সমাবেশ

সকলে জামা‘আতবদ্ধ জীবন যাপন করুন

-আমীরে জামা‘আত

পূর্বাচল, নারায়ণগঞ্জ ২০শে জানুয়ারী বুধবার : অদ্য বাদ আছর যেলার পূর্বাচলের ১৭নং সেক্টর পিংলান জামে মসজিদে ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ পূর্বাচল এলাকার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত উপরোক্ত আহবান জানান। তিনি বলেন, রাজধানী থেকে বিচ্ছিন্ন জনবিরল এই দূরবর্তী এলাকায় আপনাদের সাথে পরিচিত হতে পেরে আমরা আনন্দিত। বৃষ্টি বিঘ্নিত এই দিনেও আপনাদের স্বতঃস্ফূর্ত ব্যাপক সমাবেশ দেখে আমরা অভিভূত। আপনাদের প্রাণ প্রাচুর্যে ভরা আতিথেয়তায় আমরা মুগ্ধ। আমাদের মধ্যে পরিচয়ের এই সেতুবন্ধ রচিত হ’ল স্রেফ সাংগঠনিক ও আদর্শিক কারণে। অতএব আহলেহাদীছ আন্দোলনের বিশুদ্ধ দাওয়াতে আপনারা জামা‘আত বদ্ধ হউন এবং ইহকালীন মঙ্গল ও পরকালীন মুক্তির লক্ষ্যে এগিয়ে আসুন।

যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা শফীকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি মাওলানা কেরামত আলী, পূর্বাচল এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি ছালাহুদ্দীন মেম্বার, পিংলাক সিটি জামে মসজিদের ইমাম খায়রুল ইসলাম ও পূর্বাচল এলাকা ‘যুবসংঘ’-এর সমাজকল্যাণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রমুখ।

কাঞ্চন, নারায়ণগঞ্জ : পূর্বাচলের প্রোগ্রাম শেষে আমীরে জামা‘আত রাত সাড়ে ৮-টায় নারায়ণগঞ্জ যেলার আড়াই হাজার থানাধীন কাঞ্চন বাজার কেন্দ্রীয় আহলেহাদীছ জামে মসজিদে পৌঁছেন। সেখানে অপেক্ষমাণ মুছল্লীদের নিয়ে তিনি এশার ছালাত আদায় করেন। অতঃপর উপস্থিত মুছল্লী ও পার্শ্ববর্তী হাফেযী মাদরাসার ছাত্রদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য পেশ করেন।

দায়িত্বশীল বৈঠক : অতঃপর রাত ৯-টায় আমীরে জামা‘আত উক্ত মসজিদের সন্নিকটে অবস্থিত যেলা ‘আন্দোলন’-এর কার্যালয়ে গমন করেন। সেখানে তিনি যেলা ও এলাকা ‘আন্দোলন’-এর দায়িত্বশীলদের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন। তিনি যেলা ও এলাকার খোঁজ-খবর নেন এবং সাংগঠনিক কাজের গতিশীলতা বৃদ্ধির জন্য দায়িত্বশীলগণকে পরামর্শ ও উপদেশ দেন। একই স্থানে নরসিংদী যেলা ‘আন্দোলন’ ও ‘যুবসংঘ’-এর দায়িত্বশীলদের সাথে পৃথকভাবে বৈঠক করেন।

শ্যামপুর গমন : কাঞ্চনের প্রোগ্রাম সেরে আমীরে জামা‘আত তাঁর অসুস্থ বেহাইকে দেখতে সফরসঙ্গীদের নিয়ে শ্যামপুর গমন করেন। সেখানে তিনি রাতের খাবার গ্রহণ করেন। এসময় আমীরে জামা‘আতের সাথে ছিলেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর উপদেষ্টা জনাব আলমগীর হোসাইন, অর্থ সম্পাদক কাযী হারূনুর রশীদ, দফতর সম্পাদক ফযলুল হক, মাদারটেক এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি ফরীদ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক জালাল দেওয়ান, ঢাকা যেলা ‘সোনামণি’ পরিচালক মুহাম্মাদ আনীসুর রহমান প্রমুখ। অতঃপর রাত সাড়ে ১১-টায় তিনি ঢাকায় হোটেলে ফিরে আসেন।

মালিটোলা, ঢাকা ২১শে জানুয়ারী বৃহস্পতিবার : অদ্য বাদ এশা পুরানো ঢাকার মালিটোলা আহলেহাদীছ জামে মসজিদে উপস্থিত মুছল্লীদের উদ্দেশ্যে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত বলেন, ১৯৭৮ সালের ৫ই ফেব্রুয়ারী ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’ গঠনের পর থেকে পার্শ্ববর্তী সুরীটোলা জামে মসজিদ ও এই মসজিদ ছিল সংগঠনের প্রাণকেন্দ্র। পরবর্তীতে ১৯৮০ সালে যাত্রাবাড়ী মাদরাসা থেকে নাযিরাবাজার মাদরাসাতুল হাদীছে কেন্দ্র স্থানান্তরিত হয়।  সে সময় ‘যুবসংঘে’র সভাপতি মুহাম্মাদ আহসান ও ডা. আবু যায়েদ প্রমুখ আমাদের পুরানো সাথী। ‘মানসী’ সিনেমা হলে ইংরেজী ব্লু ফিল্মের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মিছিলে আমরা আপনাদের সাথে যোগদান করেছি। আমরা আপনাদেরকে পুনরায় সামনে এগিয়ে চলার আহবান জানাচ্ছি। তাঁর ভাষণ শেষে মুছল্লীদের পক্ষ থেকে মুতাওয়াল্লী ছাহেব আমীরে জামা‘আতকে ধন্যবাদ জানান। অতঃপর মহল্লার সন্তান ও বর্তমানে ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি আলহাজ্জ মুহাম্মাদ আহসান ও বংশাল এলাকা ‘আন্দোলন’-এর আহবায়ক আযীমুদ্দীন বক্তব্য রাখেন ও অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, মালিটোলা মসজিদের মুতাওয়াল্লী ডাঃ আবু যায়েদ আমীরে জামা‘আতকে জুম‘আর ছালাত আদায়ের জন্য ইতিপূর্বে হোটেলে গিয়ে অনুরোধ করেন। সেটা রক্ষা সম্ভব না হওয়ায় তাঁর আবেদনক্রমে তিনি বৃহস্পতিবার এশার ছালাত উক্ত মসজিদে আদায় করেন। ঐ মসজিদে তাঁর ছালাত আদায়ের কথা প্রচারিত হলে পার্শ্ববর্তী আহলেহাদীছ মহল্লা সমূহের মুছল্লীগণ এবং ভাষাণটেক, মাদারটেক প্রভৃতি এলাকা থেকে কর্মীগণ ছুটে আসেন। এছাড়া মহিলারাও দোতলায় উপস্থিত হন। মুছল্লীগণ আমীরে জামা‘আতের ১ঘন্টা ২০ মিনিটের বক্তব্য শুনে মুগ্ধ হন এবং ভবিষ্যতে ঢাকায় এলে বিভিন্ন মহল্লার মসজিদ থেকে তাঁকে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়।

অতঃপর ২২শে জানুয়ারী শুক্রবার দুপুর ২-টার বিমান যোগে রওয়ানা হয়ে বেলা পৌনে ৩-টায় রাজশাহী বিমানবন্দরে অবতরণ করেন ও সোয়া ৩-টায় মারকাযে পৌঁছেন। ফালিল্লাহিল হাম্দ।

সুধী সমাবেশ

গোপালপুর, মোহনপুর, রাজশাহী ২রা ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার : অদ্য বাদ আছর যেলার মোহনপুর উপযেলাধীন গোপালপুর আহলেহাদীছ জামে মসজিদে ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’ মোহনপুর উপযেলার উদ্যোগে এক সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উপযেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ রেযাউল করীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘যুবসংঘ’-এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুস্তাকীম আহমাদ। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপযেলা ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি আফাযুদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক, ধুরইল এলাকার সভাপতি আব্দুল বারী, রাজশাহী পশ্চিম যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি আশরাফুল ইসলাম, পিয়ারপুর শাখা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ বেলালুদ্দীন ও গোপালপুর শাখা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সঞ্চালক ছিলেন মোহনপুর উপযেলা ‘যুবসংঘ’-এর সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম।

যেলা সম্মেলন

ময়মনসিংহ ২২শে জানুয়ারী শুক্রবার : অদ্য বাদ আছর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ ময়মনসিংহ যেলার উদ্যোগে যেলার ত্রিশাল থানাধীন অলহরী খারহর মুন্সিবাড়ী আহলেহাদীছ জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে যেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ আব্দুল কাদের এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল অধ্যাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন ও সোনামণি কেন্দ্রীয় পরিচালক আব্দুল হালীম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পাবনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মাওলানা বেলাল হোসাইন, ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর প্রচার সম্পাদক মুহাম্মাদ শফীকুল ইসলাম, দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ ফযলুল হক, টাঙ্গাইল যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাষ্টার আব্দুল ওয়াজেদ, ময়মনসিংহ যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সফীরুদ্দীন প্রমুখ।

ইসলামী সম্মেলন

ধোবাউড়া, ময়মনসিংহ ১১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার : অদ্য বাদ আছর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ ধোবাউড়া উপযেলার উদ্যোগে মেকিয়ারকান্দা দাখিল মাদরাসা ময়দানে এক ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। পশ্চিম মেকিয়ারকান্দা আহলেহাদীছ জামে মসজিদের খতীব মাওলানা আব্দুল হান্নান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন। সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম, ‘সোনামণি’ কেন্দ্রীয় পরিচালক আব্দুল হালীম, ময়মনসিংহ যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সফীরুদ্দীন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন ‘সোনামণি’ ময়মনসিংহ যেলার পরিচালক মুহাম্মাদ আলী। উল্লেখ্য, সম্মেলনের এক পর্যায়ে রাত ১০-টায় কেন্দ্রীয় মেহমান পার্শ্ববর্তী মেকিয়ারকান্দা বাজারে নব প্রতিষ্ঠিত আহলেহাদীছ জামে মসজিদ পরিদর্শনে যান এবং সেখানে উপযেলা কর্মপরিষদের সাথে বৈঠক করেন। এ সময় তিনি সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

পাংশা, রাজবাড়ী ২৮শে জানুয়ারী বৃহস্পতিবার : অদ্য বাদ আছর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ রাজবাড়ী যেলার রঘুনাথপুর এলাকার উদ্যোগে স্থানীয় রঘুনাথপুর আহলেহাদীছ জামে মসজিদ সংলগ্ন ময়দানে এক ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। জনাব আনীসুর রহমান মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন ও ‘সোনামণি’ কেন্দ্রীয় পরিচালক আব্দুল হালীম। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি ও স্থানীয় সেনগ্রাম ফাযিল মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মকবুল হোসাইন, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মাদ ঈমান আলী প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে, বাদ যোহর হ’তে অত্র মসজিদে কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় এবং পরদিন বাদ ফজর সমবেত মুছল্লীদের উদ্দেশ্যে কেন্দ্রীয় মেহমানগণ দরস পেশ করেন। অতঃপর মুহাম্মাদ রাসেলকে পরিচালক করে ‘সোনামণি’ রাজবাড়ী যেলা কমিটি গঠন করা হয়।

তাবলীগী সভা

দামুড়হুদা, চুয়াডাঙ্গা ২৯শে জানুয়ারী শুক্রবার : অদ্য বাদ মাগরিব ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ চুয়াডাঙ্গা যেলার উদ্যোগে যেলার দামুড়হুদা দশমী গোরস্থান সংলগ্ন জামে মসজিদে মাসিক তাবলীগী সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ সাঈদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত তাবলীগী সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল অধ্যাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন, মেহেরপুর যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ তরীকুযযামান, সোনামণি কেন্দ্রীয় পরিচালক আব্দুল হালীম প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে, একই দিন বাদ আছর যেলার জীবননগর থানাধীন লক্ষ্মীপুর গ্রামে স্থানীয় হানাফী মসজিদ হতে বিতাড়িত নতুন আহলেহাদীছ ভাইদের উদ্যোগে জনাব ওমর ফারূকের বাসার ছাদে এক সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে কেন্দ্রীয় মেহমান হিসাবে বক্তব্য পেশ করেন ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন। তিনি দ্বীনে হক-এর উপর অবিচল থাকার বিগত দৃষ্টান্তসমূহ তুলে ধরে সকলকে ধৈর্যধারণের উপদেশ দেন এবং যেকোন মূল্যে ছহীহ আক্বীদা ও আমলের উপর টিকে থাকার আহবান জানান। অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি মুহাম্মাদ রুকনুদ্দীন ও প্রচার সম্পাদক ক্বামারুযযামান প্রমুখ।

রাজশাহী ৩১শে জানুয়ারী রবিবার : অদ্য বাদ মাগরিব ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ রাজশাহী মহানগরীর উদ্যোগে শহরের শিরোইল আহলেহাদীছ জামে মসজিদে এক তাবলীগী সভা অনুষ্ঠিত হয়। শিরোইল শাখা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি জনাব মুহাম্মাদ হাবীবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত তাবলীগী সভায় আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন। মহানগর ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি জনাব নাযিমুদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মুবীনুল ইসলাম, সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক আবুবকর, প্রশিক্ষণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-মামূন প্রমুখ দায়িত্বশীলগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালক ছিলেন অত্র মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল হাদী।

মারকায সংবাদ

ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় মারকাযের ছাত্রদের কৃতিত্ব

গত ২৬শে জানুয়ারী’১৬ মঙ্গলবার বশিরাবাদ আলিম মাদরাসায় (রাজশাহী) ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’-এর উদ্যোগে উপযেলা পর্যায়ে জাতীয় শিশু-কিশোর ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০১৫ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিযোগিতায় আল-মারকাযুল ইসলামী আস-সালাফী কমপ্লেক্স-এর ১৬ জন ছাত্র অংশগ্রহণ করে ১০ জন ছাত্র বিভিন্ন বিষয়ে মোট ১৩টি পুরস্কার অর্জন করে। বিজয়ীরা হল :

বিষয়

গ্রুপ- ক

স্থান

ক্বিরাআত

(১) আব্দুল্লাহ রিয়ায  (হিফয বিভাগ)

(২) মুহাম্মাদ শাকিরুদ্দীন   (,,)

২য়

৩য়

আযান

(১) মুহাম্মাদ রায়হান আলী  (,,)

(২) হাবীবুল্লাহ আল-মা‘রূফ (,,)

২য়

৩য়

 

গ্রুপ- খ

 

ক্বিরাআত

(১) আব্দুল হাসীব (৫ম শ্রেণী)

(২) আব্দুল্লাহ শাকিল (হিফয বিভাগ)

১ম

৩য়

আযান

(১) মাযহারুল ইসলাম (৬ষ্ঠ শ্রেণী)

৩য়

হামদ ও না‘ত

(১) আব্দুল্লাহ শাকিল (হিফয বিভাগ)

(২) আব্দুল হাসীব (৫ম শ্রেণী)

১ম

৩য়

উপস্থিত বক্তৃতা

(১) আলাউদ্দীন (৮ম শ্রেণী)

৩য়

রচনা

(১) মিনহাজুল ইসলাম (১০ম শ্রেণী)

(২) আলাউদ্দীন   (৮ম শ্রেণী)

(৩) মুযযাম্মিল হক (,,)

১ম

২য়

৩য়

মৃত্যু সংবাদ

(১) ক্বারী এলাহী বখ্শ (১১৬) গত ৯ই ডিসেম্বর ’১৫ সন্ধ্যা ৬-টায় সাতক্ষীরার তালা থানাধীন ১নং ধানদিয়া ইউনিয়নের পাঁচপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ীতে বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন। ইন্না লিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেঊন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ পুত্র ও ১ কন্যা রেখে যান। পরদিন বাদ যোহর জানাযার ছালাতে ইমামতি করেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা আব্দুল মান্নান। অতঃপর তাঁকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। জানাযায় যেলা ‘আন্দোলন’ ও ‘যুবসংঘ’-এর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

(২) ক্বারী ঈসা (১০০) গত ১০ই জানুয়ারী সকাল ১১-টায় সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়নের উত্তর দেবনগর গ্রামে নিজ বাড়ীতে বার্ধক্য জনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন। ইন্না লিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেঊন। মৃত্যুকালে তিনি ৫ পুত্র ও ৩ কন্যা সন্তান রেখে যান। পরদিন সকাল ১০-টায় তার জানাযার ছালাত অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় ইমামতি করেন তাঁর বিমাতা ভাই হাফেয আব্দুল হাদী। অতঃপর তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। জানাযায় যেলা ‘আন্দোলন’ ও ‘যুবসংঘ’-এর দায়িত্বশীলবৃন্দ এবং কাকডাঙ্গা মাদরাসার শিক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন।

দু’জনেই কাকডাঙ্গা সিনিয়র মাদরাসায় আমীরে জামা‘আতের বাল্যকালের শিক্ষক ছিলেন। দ্বিতীয় জন আমীরে জামা‘আতের ঘনিষ্ট আত্মীয় ছিলেন এবং ঢাকা কারাগারে থাকা অবস্থায় তিনি আমীরে জামা‘আতকে সেখানে দেখতে যান।

(৩) ‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’-এর সাবেক হিসাব রক্ষক ও ‘আন্দোলন’-এর নিবেদিতপ্রাণ শুভাকাঙ্খী জনাব মুমতায আলী মোল্লা (৭৬) গত ৫ই ফেব্রুয়ারী সকাল ১১-টায় রাজশাহী মহানগরীর রামচন্দ্রপুরে নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন। ইন্না লিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেঊন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৫ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তান রেখে যান। একইদিন বিকাল ৫-টায় টিকাপাড়া কবরস্থান সংলগ্ন ঈদগাহে তার জানাযার ছালাত অনুষ্ঠিত হয়। ইমামতি করেন তাঁর ৪র্থ পুত্র মুহাম্মাদ সুলতানুল ইসলাম। অতঃপর তাকে টিকাপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়। তিনি ইপিআর, বিএডিসি, বরেন্দ্র প্রকল্প ও তুলা উন্নয়ন বোর্ডে চাকুরী করেন এবং এখান থেকেই অবসর গ্রহণ করেন। তাঁর জানাযায় ‘আন্দোলন’-এর মুহতারাম আমীরে জামা‘আত প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিব, প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম, রাজশাহী মহানগরী ‘আন্দোলন’-এর সমাজকল্যাণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, হাদীছ ফাউন্ডেশন-এর গবেষণা সহকারী আহমাদ আব্দুল্লাহ নাজীবসহ বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, তার পুত্র সুলতান নিয়মিতভাবে আত-তাহরীকের প্রচ্ছদ সমূহের ডিজাইন ও হা.ফা.বা প্রকাশিত বইসমূহের প্রচ্ছদ করে থাকেন।

[আমরা মাইয়েতগণের রূহের মাগফেরাত কামনা করছি এবং তাঁদের শোকাহত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।- সম্পাদক]