মুসলিম জাহান

১৪ বছর পর ৩য় বারের মত ক্ষমতায় আসছেন নওয়াজ শরীফ

পাকিস্তানে ঐতিহাসিক নির্বাচন

পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) জয়লাভ করেছে। ২৭২ আসনের মধ্যে তার দল জিতেছে ১৩০টি আসনে। পাকিস্তানের ৬৬ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত একটি সরকার অপর একটি নির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে যাচ্ছে। ৬৩ বছর বয়সী নওয়াজ শরীফ তৃতীয়বারের মতো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদে অধিষ্ঠিত হ’তে যাচ্ছেন। নির্বাচনে ইমরান খানের নবগঠিত দল পিটিআই পেয়েছে ৩৭টি আসন, শাসকদল জারদারির পিপিপি পেয়েছে ৩৫টি এবং অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পেয়েছে ৭০টি আসন। বিজয় পরবর্তী ভাষণে নওয়াজ শরীফ বলেন, ‘আল্লাহকে ধন্যবাদ যে তিনি পাকিস্তানের সেবার জন্য মুসলিম লীগকে আবারও সুযোগ দিয়েছেন।’ উল্লেখ্য, পাকিস্তানের মজলিসে শূরার ২৭২টি আসনে সরাসরি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বাকি ৬০টি আসন নারী ও ১০টি আসন অমুসলিমদের জন্য সংরক্ষিত। নির্বাচনে দলগুলোর প্রাপ্ত আসনের অনুপাতে সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ করা হয়।

১০ বছরের মধ্যে বৃটেন মুসলিম প্রধান হবে

আগামী ১০ বছরের মধ্যে বৃটেন মুসলিম প্রধান দেশে পরিণত হবে। বৃটেনে খ্রিস্টানদের সংখ্যা দিন দিন উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাওয়ায় এ অবস্থা সৃষ্টি হতে যাচ্ছে। ২০১১ সালের এক গবেষণার ফলাফল থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এতে বলা হয়েছে- আগামী দশকে বৃটিশ খ্রিস্টানরা নিজেদের একটি সংখ্যালঘু জাতি হিসেবে পরিচয় দেবে। গবেষণা ফলাফলে আরো বলা হয়েছে, ৫৩ লাখেরও কম বৃটিশ এখন তাদেরকে খ্রিষ্টান হিসেবে পরিচয় দেয়। গত এক দশকে বৃটেনে সামগ্রিকভাবে জনসংখ্যা বাড়লেও খ্রিষ্টানদের সংখ্যা কমেছে শতকরা ১৫ ভাগ। অন্যদিকে গত এক দশকে বৃটেনে মুসলমানদের সংখ্যা বেড়েছে শতকরা ৭৫ ভাগ এবং অভিবাসী হয়ে দেশটিতে গেছে প্রায় ছয় লাখ মুসলিম। যেখানে গড়ে ২৫ বছর বয়সী মুসলমানরাই ইসলাম ধর্ম পালন করে সবচেয়ে বেশি, সেখানে খ্রিষ্টানদের মধ্যে ৪৫ বছর বয়েসের লোকজন বেশি ধর্ম পালন করে। এদিকে, বৃটেনে নাস্তিকের সংখ্যাও বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। এ সংখ্যা গত এক দশকে বেড়েছে শতকরা ১০ ভাগ এবং ৬৪ লাখ ইংরেজ বলেছে- কোনো ধর্মে তাদের বিশ্বাস নেই। ন্যাশনাল সেক্যুলার সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক কিথ পোর্টিয়াস উড বৃটিশ দৈনিক টেলিগ্রাফকে বলেছেন, ‘যে হারে বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে খ্রিষ্টানদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে তা থামানো যাবে না।