স্বদেশ-বিদেশ

স্বদেশ

নিরাপত্তা রক্ষায় নিজস্ব সক্ষমতা অর্জনে এক ধাপ অগ্রগতি

বাংলাদেশে নির্মিত হ’ল প্রথম যুদ্ধজাহায

শত্রুবিমান ও জাহায বিধ্বংসী কামানযুক্ত যুদ্ধজাহায প্রথমবারের মত নির্মিত হ’ল দেশের নৌবাহিনী নিয়ন্ত্রিত খুলনা শিপইয়ার্ডে। এর মাধ্যমে দেশের নিরাপত্তা রক্ষায় নিজস্ব সক্ষমতা অর্জনে বাংলাদেশ এক ধাপ এগিয়ে গেল। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য এই জাহায নির্মাণ করা হয়েছে। নৌবাহিনী এত দিন প্রায় শতভাগ বিদেশী যুদ্ধসরঞ্জাম ব্যবহার করত। এখন থেকে দেশে নির্মিত জাহাযেই তারা সমুদ্রের সম্পদ পাহারা দিতে পারবে। মোট ৫টি জাহাযের প্রতিটির নির্মাণ ব্যয় হচ্ছে প্রায় ৫৮ কোটি টাকা। চীন ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বিশেষজ্ঞদের সহযোগিতায় এই জাহায নির্মিত হচ্ছে। এই মানের জাহায আমদানী করতে গেলে প্রতিটির জন্য ১০০ কোটি টাকার মতো ব্যয় হ’ত। উল্লেখ্য যে, ৫৫ বছর পূর্বে প্রতিষ্ঠিত হয়ে ঋণভারে জর্জরিত হওয়ার পর গত ১৩ বছর ধরে নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেড একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়ে সুনাম অর্জন করেছে। এমনকি এ বছর খুলনা যেলায় সর্বোচ্চ করদাতা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

সম্পত্তির লোভে পিতার হাতে পুত্র খুন

১০ কাঠা জমির জন্য ঠাকুরগাঁওয়ে জন্মদাতা পিতার হাতে খুন হয়েছে পুত্র মনছূর আলী (৮)। নাবালক পুত্রের কাছ থেকে জমি লিখে নিতে না পেরে মূসা আলী নামে এক পাষন্ড পিতা সৎ মায়ের সংসারে বেড়ে ওঠা স্বীয় পুত্রকে কুপিয়ে অতঃপর পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেছে। পুলিশের কাছে দেওয়া এক যবানবন্দীতে মূসা জানায়, দাদা কর্তৃক প্রাপ্ত ১০ কাঠা জমির জন্য রাতে ছেলেকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে জমি বিক্রির কাগজে সই করতে বলি। এতে সে রাজি না হওয়ায় তাকে গলাটিপে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেই। গ্রামবাসী জানায়, জুয়ার অর্থ জোগাড় করতে সে এই নির্মম ঘটনা ঘটিয়েছে।

৩১ কোম্পানির ৪৩ খাদ্যপণ্যের অনুমোদন বাতিল

নামে ফ্রুট ড্রিংকস, কিন্তু তাতে ফলের লেশমাত্র নেই। সেমাই, চাটনি, বিস্কুট তৈরি হচ্ছে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে। তা-ই খাচ্ছে মানুষ দিনের পর দিন। ভেজিটেবল ঘিয়ের নামে যা বিক্রি হচ্ছে, তাতে রক্ষিত হয়নি কোন মান। খাদ্যমান রক্ষায় ব্যর্থ হওয়ায় মোট ৩১টি কোম্পানির এ রকম ৪৩টি খাদ্যপণ্যের লাইসেন্স বাতিল করেছে বাংলাদেশের পণ্য মান নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বিএসটিআই। বাতিল হওয়া পণ্যের তালিকায় রয়েছে প্রাণের ফ্রুট ড্রিংকস। মডার্ন ফুড প্রোডাক্ট লিমিটেডের ফ্রুট ড্রিংকস, রংধনু ফুডসের ধনিয়া গুঁড়া, ঢাকা ফুড ইন্ডাস্ট্রির সেমাই ডায়মন্ড, আলাউদ্দিন সেমাই ফ্যাক্টরির সেমাই ইত্যাদি।

দেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ

বাংলাদেশে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ১৫ লাখ। এছাড়া প্রতিবছর প্রায় ২ লক্ষাধিক মানুষ নতুন করে ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে। বছরে মারা যাচ্ছে প্রায় দেড় লাখ। দেশে এমন কোন গ্রাম নেই যেখানে ক্যান্সারাক্রান্ত রোগী নেই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী দক্ষিণ এশিয়ার নিম্ন আয়ের ১৬টি দেশে বিশ্বের ৬০% ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর বাস। ধারণা করা হচ্ছে আগামী ৪ বছরে এ রোগীর সংখ্যা ৫০% বৃদ্ধি পাবে। বিশেষতঃ ভেজালযুক্ত খাদ্যের ব্যাপকতাই দেশকে এই ভয়াবহ অবস্থার দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে বিশেষজ্ঞ মহলের অভিমত। এছাড়া ৯০% ফুসফুসের ক্যান্সার ধূমপানের কারণে হয়ে থাকে।

ক্লিক টু আর্ন প্রতারণা

সম্প্রতি দিনাজপুরে ঘরে বসে ওয়েবসাইট ভিজিট করে মাসে ৪০ থেকে ৩০০ ডলার পর্যন্ত আয়ের লোভ দেখিয়ে সাড়ে সাতশ’ গ্রাহকের নিকট থেকে ৮৪ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়েছে ‘গেট রেমিটেন্স আউটসোর্সিং’ নামে একটি কোম্পানী। প্রতি গ্রাহকের নিকট থেকে ১১ হাযার ২শ’ টাকা করে নিয়ে প্রতি দিন মাত্র ১০টি বিজ্ঞাপন ১০ সেকেন্ড করে ভিউ করে উপরোক্ত আয়ের লোভ দেখায় কোম্পানীটি। কিন্তু ৩ মাসেও গ্রাহকরা কোন অর্থ হাতে না পাওয়ায় তারা কোম্পানী সিইওকে চাপ দিতে থাকে। অতঃপর সে তার সদস্যদেরসহ গা ঢাকা দেয়। প্রতারিত স্কুলশিক্ষক রকিবুল ইসলাম জানান, তিনি ৬৭ হাযার টাকা দিয়ে একসাথে ৬টি একাউন্ট ক্রয় করেন। এপর্যন্ত তার একাউন্টে প্রায় সাড়ে পাঁচশ’ ডলার জমা হ’লেও তা হাতে পাননি। উল্লেখ্য যে, গত কয়েক বছরে দেশের বিভিন্ন স্থানে হাযারো মানুষ এ প্রতারণার শিকার হয়ে পথে বসেছে। ইতিমধ্যে ডোলেন্সার, স্কাইল্যান্সার ও বিডিএস ক্লিক ৯০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে।

সুন্দরবনে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদনকেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা

মারাত্মক ক্ষতির আশঙ্কা

সুন্দরবনের মাত্র ৯.৩০ কি.মি. দূরে বাগেরহাটের রামপালে সাপমারী-কাটাখালী এলাকার সম্পূর্ণ কৃষি জমিতে ভারতীয় আর্থিক সহযোগিতায় ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন দেশের সর্ববৃহৎ কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মিত হ’তে যাচ্ছে। কিন্তু পরিবেশবিদগণের এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হ’লে সুন্দরবন ও তৎসংলগ্ন লোকালয়ের ওপর পরিবেশগত ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে। প্রতিবেদনে বলা হয়, এতে এলাকার পানি শতভাগ, বাতাস শতকরা নববই ভাগ এবং মাটি শতকরা পয়ষট্টি ভাগ দূষিত হয়ে পড়বে। মাটির লবণাক্ততা এবং বাতাসে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। যার ফলে অর্ধেক বন ধ্বংস হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। উল্লেখ্য যে, এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ৩টি রিট পিটিশন করা হ’লেও সরকার তার জবাব না দিয়ে নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

[ভারতের স্বার্থে সরকার এভাবে দেশের স্বার্থ একের পর এক জলাঞ্জলি দিয়েও নিজেকে দেশের স্বাধীনতার পক্ষের সরকার বলে দাবী করে থাকে। অনতিবিলম্বে এই প্রকল্প বাতিল করুন (স.স.)]

দেশে ৯০ লাখ টন বাড়তি ধান উৎপাদন সম্ভব

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) পরামর্শ অনুসরণ করে চাষ করা সম্ভব হ’লে দেশে প্রতিবছর বাড়তি ৯০ লাখ টন ধান উৎপাদন সম্ভব। দেশের ২৫ যেলার ৭৫টি উপযেলায় ধান উৎপাদনের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে পরিচালিত গবেষণার ফলাফল থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। সম্প্রতি ব্রি’র বার্ষিক গবেষণা পর্যালোচনার সমাপনী দিনে এ তথ্য উত্থাপন করা হয়েছে। ব্রি’র মহাপরিচালক সাঈদুল ইসলাম বলেন, গত চার দশকে দেশে জনসংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণের বেশি হ’লেও মূলত ব্রি উদ্ভাবিত উচ্চ ফলনশীল ধানের জাতসহ উন্নত চাষাবাদ প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে দেশে ধান উৎপাদন সাড়ে তিনগুণ বেড়েছে। এছাড়া ব্রি উদ্ভাবিত সরু ও সুগন্ধিযুক্ত বোরো মওসুমের জাত ‘বাংলামতি’ রফতানি সম্ভাবনাময়। বর্তমানে দেশের ৮০% জমিতে ব্রি উদ্ভাবিত ধানের জাতের চাষাবাদ হয় এবং মোট উৎপাদিত ধানের ৯০% এর থেকে আসে।

[আল্লাহ রূযীর মালিক। তিনি তাঁর বান্দাদের মাধ্যমে এভাবে উদ্ভাবন ঘটিয়ে রূযীর ব্যবস্থা করে থাকেন। আমাদের উচিত তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ হওয়া (স.স.)]

 

বিদেশ

২০১২ সালে নোবেল বিজয়ী যারা

২০১২ সালে ৬টি বিষয়ে মোট ১০ জন নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। কোয়ান্টাম অপটিকস নিয়ে গবেষণার জন্য পদার্থবিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ফ্রান্সের সার্জ হ্যারোশ ও যুক্তরাষ্ট্রের ডেভিড ওয়াইনল্যান্ড। মানবদেহে এক কোষ থেকে আরেক কোষে যে জটিল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান হয়, তা নিয়ে গবেষণা করার জন্য রসায়নে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন দুই মার্কিন গবেষক রবার্ট লেফকোইজ এবং ব্রায়ান কবিলকা। চিকিৎসাশাস্ত্রে স্টেম সেল নিয়ে গবেষণা করে এবছর নোবেল পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জন গার্ডন এবং জাপানের সিনইয়া ইয়ামানাকা। সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন চাইনিজ গল্পকার ও ঔপন্যাসিক মোঁ ইয়ান। গণতন্ত্র, মানবাধিকার রক্ষা এবং সমঝোতা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে গত ছয় দশকে ভূমিকার জন্য শান্তিতে নোবেল পেয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। অর্থনীতির বিভিন্ন সূচকের মধ্যে সামঞ্জস্যবিধান নিয়ে গবেষণার জন্য অর্থনীতিতে নোবেল পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিবিদ আলভিন রথ ও লয়েড শ্যাপলে।

মস্তিষ্কে ক্যান্সারের সঙ্গে মোবাইল ফোন ব্যবহারের একটি সম্পর্ক রয়েছে

ইতালীর সুপ্রিম কোর্ট এক রায়ে বলেছে, ‘মস্তিষ্কে টিউমার সৃষ্টির সঙ্গে মোবাইল ফোন ব্যবহারের একটি যোগসূত্র রয়েছে।’ মামলাটির দায়েরকারী ৬০ বছর বয়সী সাবেক ব্যবসায়ী ইনোসেন্ট মার্কোলিনি বলেন, ‘অতিমাত্রায় অর্থাৎ দিনে প্রায় ছয় ঘণ্টা করে ১২ বছর ধরে মোবাইল ফোন ব্যবহার করার কারণে তার মস্তিষ্কে টিউমার হয়েছে। ফলে তার মুখমন্ডল আংশিকভাবে অবশ হয়ে গেছে। শুনানির পর ইতালীর আদালত তার রায়ে বলেছে, ‘মস্তিষ্কে ক্যান্সারের সঙ্গে মোবাইল ফোন ব্যবহারের একটি সম্পর্ক আছে।’ ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক অ্যানজিনো জিনো লেভিস আদালতে এ মামলার পক্ষে সাক্ষ্য দিয়েছেন। ঐ অধ্যাপক বলেন, মোবাইল ফোন ব্যবহারে মস্তিষ্কে টিউমার হওয়ার আশংকা যে বাড়িয়ে দেয়, এ রায়ের মাধ্যমে সে কথাই প্রমাণিত হ’ল। উল্লেখ্য যে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ‘হু’ এর আগে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদানের তালিকায় মোবাইল ফোনের নাম লিপিবদ্ধ করেছে।

বিশ্বে প্রতি ৮ জনে ১ জন ক্ষুধার্ত : জাতিসংঘ

জাতিসংঘের কৃষি ও খাদ্য সংস্থা ‘এফএও’ জানিয়েছে, বিশ্বে এখনো প্রতি আটজনে একজন মানুষ ক্ষুধার্ত। এই পরিস্থিতি গ্রহণযোগ্য নয় উল্লেখ করে সংস্থাটি বলছে, বিশ্বে ক্ষুধার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গতি ধীরে ধীরে কমছে। এফএও-এর খাদ্যসঙ্কট সম্পর্কিত সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১০-১২ সালে বিশ্বের জনসংখ্যার প্রায় ৮৭ কোটি অপুষ্টির শিকার এবং ক্ষুধার্ত লোকের সংখ্যা এখনো অপ্রত্যাশিতভাবেই বেশি।

মিয়ানমার জুড়ে মুসলিম বিরোধী দাঙ্গার আশঙ্কা

মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে ভয়াবহ গণহত্যা চলছে তাতে দেশের সর্বত্র মুসলিম বিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বর্তমানে সেখানে সহিংসতা কমে এলেও সর্বত্র মুসলিম বিদ্বেষী মনোভাব বেড়ে গেছে। উল্লেখ্য যে, গত মে মাসে একজন বৌদ্ধ নারীকে কয়েকজন মুসলমান ধর্ষণ করেছে বলে গুজব রটলে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে তা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর গত মাসে নতুন করে দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে এবং সরকারী হিসাবে তাতে নিহত হয় ৮৪ জন এবং গৃহহীন হয় ২৮ হাযার রোহিঙ্গা মুসলমান। ধ্বংস করা হয় প্রায় ৩০০০ ঘরবাড়ি। কিন্তু মুসলমানেরা এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, এই ঘটনা রাখাইনরা ঘটিয়ে তা মুসলমানদের নামে চালিয়ে দিয়েছে মুসলিম নিধনের অজুহাত সৃষ্টি করার জন্য।

মেঘালয়ের শিলংয়ে ভারতের প্রথম কাঁচের মসজিদ

ভারতে তো বটেই, সমগ্র পৃথিবীতেও নজির মেলা ভার। বাংলাদেশের ময়মনসিংহ সীমান্ত-সংলগ্ন ভারতের রাজ্য মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ে তৈরি হয়েছে কাঁচের সুন্দর ও দৃষ্টিনন্দন মদীনা মসজিদ। ১২০ ফুট উঁচু ও ৬১ ফুট চওড়া মসজিদটি চারতলা। ভিতরে ঈদগাহ ময়দান। সবুজ আলোয় উজ্জ্বল কাঁচগুলো দেখে মনে হয় যেন স্ফটিক খন্ড। এখানে রয়েছে একটি গ্রন্থাগার ও ইসলামী ধর্মতত্ত্ব পড়ানোর স্থান। দুই হাযার মানুষ একত্রে ছালাত আদায় করতে পারবে। এছাড়া রয়েছে মহিলাদের জন্য আলাদা কক্ষ। মসজিদটি নির্মাণে প্রায় দু’কোটি টাকার মতো খরচ হয়েছে। শিলং মুসলিম ইউনিয়ন এবং শুভানুধ্যায়ীদের দানের অর্থে এটি গড়ে উঠেছে। গত মাসে মসজিদটি কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সালমান খুরশিদ উদ্বোধন করেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বারাক ওবামা পুনর্নির্বাচিত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী বারাক ওবামা পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন। সর্বশেষ ফলাফলে ওবামা ৩৩২টি ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট পেয়েছেন। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী মিট রমনি পেয়েছেন ২০৬টি। পপুলার ভোট ওবামা পেয়েছেন ৫০% রমনি ৪৮%। প্রতিপক্ষ মিট রমনি তাঁর পরাজয় মেনে নিয়ে ওবামাকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আমি প্রার্থনা করি, যেন নতুন প্রেসিডেন্ট জাতিকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে সফল হন। উল্লেখ্য যে, এ নির্বাচনে মোট ভোটারের অর্ধেকেরও কম লোক ভোট দিয়েছে এবং মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে ব্যয়বহুল এ নির্বাচনে মোট ব্যয় হয়েছে ৬০০ কোটি ডলার (৪৯ হাযার কোটি টাকা প্রায়)। 

পিতৃত্বের বিশ্বরেকর্ড

৯৬ বছর বয়সে বাবা হলেন রামজিৎ

ভারতের হরিয়ান প্রদেশের রামজিৎ রাঘব ৯৬ বছর বয়সে পুত্র সন্তানের পিতা হয়ে সবচেয়ে বয়স্ক পিতা হিসাবে পূর্বে কৃত নিজের রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন। হরিয়ানার একটি সরকারি হাসপাতালে গত মাসে তার স্ত্রী শকুন্তলা (৫৯) একটি স্বাস্থ্যবান শিশু জন্ম দেন। সন্তান জন্মের ব্যাপারে রামজিৎ বলেছেন, আমার কি করার আছে? সবই ভগবানের ইচ্ছা। তিনি চেয়েছেন বলেই আমার আরেকটি ছেলে হয়েছে। এর আগে ৯৪ বছর বয়সে তিনি প্রথম সন্তানের অধিকারী হন এবং তখনই তিনি এ বিশ্বরেকর্ড সৃষ্টি করেন।

যুক্তরাজ্যে রাষ্ট্রহীন পথশিশুরা

যুক্তরাজ্যে ক্ষুধায় কাতর পরিচয়হীন পথশিশুর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। উন্নত বিশ্বের ধনী এ দেশটির বাসিন্দা হয়েও এই শিশুরা কোন নাগরিক সুযোগ-সুবিধা বা কোনরূপ মর্যাদা ভোগ করে না। ক্ষুধার তাড়নায় এদের কাউকে চুরি করতে হয়, আর কেউ হয়ে পড়ে যৌনকর্মী। এ রকম মেয়েশিশুর অবস্থা আরও খারাপ। পরিস্থিতি অবশেষে এদেরকে যৌনকর্মী হ’তে বাধ্য করে। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, সারা যুক্তরাজ্যেই এ রকম অসংখ্য গৃহহীন, রাষ্ট্রহীন অসহায় শিশু ছড়িয়ে আছে।

গরীব বলেই গিনিপিগ ?

ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে গোপনে নতুন ওষুধ পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। সে পরীক্ষায় গিনিপিগের মত ব্যবহৃত হচ্ছে দেশটির নিম্ন বর্ণের হতদরিদ্র মানুষ। বহুজাতিক ওষুধ নির্মাতা অনেক প্রতিষ্ঠান ভারতের নিম্নবর্ণের গরীবদের গিনিপিগ হিসাবে ব্যবহার করছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গত সাত বছরে ৩,৩০০ রোগীর মধ্যে ৭৩টি ওষুধের পরীক্ষা চালানো হয়েছে, শুধু ইন্দোরের মহারাজা যশবন্ত রাও হাসপাতালে। এসব পরীক্ষায় ব্যবহৃত মানুষের মধ্যে অধিকাংশই শিশু, যাদের অনেকেই মারা গেছে। এছাড়া গত সাত বছরে দেশটিতে মোট দু’হাযারেরও বেশী পরীক্ষা চালানো হয়েছে। ২০০৮ সালে ওষুধ পরীক্ষার কারণে ২৮৮ জন মারা যায়। ২০১১ সালে মৃতের সংখ্যা ৪৩৮ জনে পৌঁছায়।