সোনামণিদের পাতা

গত সংখ্যার সাধারণ জ্ঞান (ঈমান ও আক্বীদা বিষয়ক)-এর সঠিক উত্তর

১. তাবীয-কবচ ব্যবহার করা শিরক।

২. মানুষকে দেখানোর বা তাদের প্রশংসা ও ভালবাসা পাওয়ার জন্য কোন ইবাদত সম্পাদন করা।

৩. গণক বা জ্যোতিষীর কাছে গেলে ৪০ দিনের ছালাত কবুল হয় না।

৪. গণক বা জ্যোতিষীর কথা বিশ্বাস করলে নবী করীম (ছাঃ)-এর উপর নাযিলকৃত কুরআনের সাথে কুফরী করা হয়।

৫. অবৈধ ও শিরক।

গত সংখ্যার মেধা পরীক্ষা (প্রাণী বিষয়ক)-এর সঠিক উত্তর

১. ১০০০ বার।

২. তেলাপোকা ও টিকটিকির।

৩. পেচা।             ৪. ৬টি।              ৫. ৮টি।

চলতি সংখ্যার সাধারণ জ্ঞান (ঈমান ও আক্বীদা বিষয়ক)

১. নবী করীম (ছাঃ) কি নূরের তৈরী?

২. রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) কি গায়েব জানতেন?

৩. তিনি কি জীবিত আছেন?

৪. নবী করীম (ছাঃ) কি মৃত্যুবরণ করেছেন?

৫. তিনি ‘হাযির-নাযির’ বা সর্বত্র উপস্থিত হ’তে পারেন এরূপ বিশ্বাস করা কি?

৬. নবী করীম (ছাঃ) কি কারো উপকার-অপকার করার ক্ষমতা রাখেন?

৭. তাঁর জন্মদিবস উপলক্ষে ঈদে মীলাদুন্নবী পালন করা কি?

চলতি সংখ্যার সাধারণ জ্ঞান (মানবদেহ বিষয়ক)

১. একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের দেহে কি পরিমাণ রক্ত থাকে?

২. মানুষের ক্রোমোজমের সংখ্যা কত?

৩. মানব দেহে কতটি হাড় আছে?

৪. মানুষের মাথার সেলের সংখ্যা কত?

৫. পূর্ণবয়স্ক একজন মানুষের ফুসফুস কি পরিমাণ বায়ু ধারণ করতে পারে?

৬. কোন জিনিস মানুষের হাড় ও দাঁত মযবূত করে?

সংগ্রহে : মুহাম্মাদ তরীকুল ইসলাম

বংশাল, ঢাকা।

সোনামণি সংবাদ

বড়কুড়া, কামারখন্দ, সিরাজগঞ্জ ১৪ই মে বৃহস্পতিবার : অদ্য সকাল ৮-টায় ‘সোনামণি’ সিরাজগঞ্জ যেলার উদ্যোগে বড়কুড়া দক্ষিণ পাড়া মৃত হারিছ প্রামাণিকের বাড়ী সংলগ্ন ময়দানে সোনামণি যেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘সোনামণি’র প্রধান উপদেষ্টা ও যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি জনাব মুহাম্মাদ মুর্তাযার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘সোনামণি’র সাবেক পৃষ্ঠপোষক ও ‘যুবসংঘ’-এর সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মুযাফফর বিন মুহসিন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘সোনামণি’ কেন্দ্রীয় পরিচালক আব্দুল হালীম বিন ইলিয়াস, সাবেক কেন্দ্রীয় পরিচালক ও ‘যুবসংঘ’-এর সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইমামুদ্দীন বিন আব্দুল বাছীর ও কেন্দ্রীয় সহ-পরিচালক বযলুর রহমান। ‘সোনামণি’ যেলা সম্মেলন উপলক্ষে স্মরণিকা প্রকাশ করে। উক্ত সম্মেলনের দু’মাস আগে ৫০টি প্রশ্ন সম্বলিত একটি কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে তিনজনকে পুরস্কৃত করা হয়। বিজয়ীরা হ’ল মারযিয়া বিনতে রেযাউল করীম (১ম স্থান), তানযীলা বিনতে টিক্কা কাযী (২য় স্থান) ও সুমী বিনতে বেলাল কাযী (৩য় স্থান)। এছাড়া দু’জনকে বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হয়। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি ও সভাপতি মহোদয়।

সোনামণির পরিচয়

তাসনীম

মহিলা সালাফিয়া মাদরাসা

নওদাপাড়া, রাজশাহী।

সোনামণি তুমি নীল প্রজাপ্রতি

অজ্ঞতার অন্ধকারে জ্বলন্ত এক বাতি।

তুমি হাযার কাঁটার মাঝে ফুটন্ত গোলাপ

শত কোটি তারার মাঝে যেন একটি চাঁদ।

সোনামণি তুমি ধুধু মরু প্রান্তরে পানির ফোয়ারা

তুমি শক্ত পাহাড়ের বুকে অপূর্ব ঝর্ণধারা।

তুমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর

তুমি অাঁধার এ যুগে দ্বীনের রাহবার।

হেদায়াতের বাণী নিয়ে তুমি ধরায় এলে

ধন্য হ’লাম আমরা সবাই তোমার পরশ পেয়ে।

বেঁচে থাক চিরদিন আমাদের মাঝে

আরো দ্রুত অগ্রসর হও অহি ভিত্তিক কাজে।

ঠিকানা

মুহাম্মাদ রাশিদুল ইসলাম

দর্শনপাড়া, পবা, রাজশাহী।

কাফন হবে সাজ তোমার কবর হবে ঘর

যারা ছিল অতি আপন তারাও হবে পর।

একাই এসেছ ভবে যাবে একা একা

এটাই পৃথিবীর নিয়ম দিয়েছেন বিধাতা।

মৃত্যুর পরে সৎআমল হবে তোমার সাথী

প্রশ্নের উত্তর সঠিক হ’লে কবরে পাবে বাতি।

হাশরের ময়দানে কেউ কারো নয়

নিজেকে নিয়েই থাকবে ব্যস্ত সবাই।

হিসাব হবে পাপ-পুণ্যের ওযন হবে তার

 কেউ পাবে সুখের গৃহ কেউ দুঃখের আধার।

দুনিয়াতে করলে সৎকাজ মিলবে রবের করুণা

জাহান্নাম থেকে নাজাত পাবে জান্নাত হবে ঠিকানা।

 

***