সংগঠন সংবাদ

আন্দোলন  

ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ সফরে আমীরে জামা‘আত

গত ১০ই জুলাই বৃহস্পতিবার হ’তে ১২ই জুলাই শনিবার পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী সফরে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিব ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী নারায়ণগঞ্জ যেলার বিভিন্ন এলাকা সফর করেন। ১০ই জুলাই সকাল ৫-টায় রাজশাহী থেকে বাস যোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। সকাল ১১-টায় ঢাকা পৌঁছে তিনি সোনারগাঁয়ে স্বীয় জামাতার সাথে সাক্ষাৎ করার জন্য উপযেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখান থেকে নারায়ণগঞ্জের কাঞ্চনে পৌঁছেন।

কাঞ্চন, নারায়ণগঞ্জ ১০ই জুলাই বৃহস্পতিবার : বাদ যোহর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ কাঞ্চন এলাকার উদ্যোগে কাঞ্চন কেন্দ্রীয় আহলেহাদীছ জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি যোগদান করেন। অতঃপর উক্ত সমাবেশে প্রদত্ত প্রধান অতিথির ভাষণে সমবেত মুছল্লীদেরকে নুযূলে কুরআনের এই মাসে সর্বাধিক তাক্বওয়া হাছিলের আহবান জানান। তিনি বলেন, আল্লাহর নিকটে মর্যাদার একমাত্র মানদন্ড হচ্ছে তাক্বওয়া। ছিয়াম ফরয করা হয়েছে তাক্বওয়া অবলম্বনের জন্যই। সেকারণ প্রকৃত তাক্বওয়াশীল ব্যক্তি কখনো কোন গর্হিত কর্মে লিপ্ত হ’তে পারে না। সূদ, ঘুষ, জুয়া, লটারী, দুর্নীতি ও পারস্পরিক হিংসা, বিদ্বেষ, ঝগড়া-বিবাদ মারামারি থেকে মানুষকে পরহেয করতে পারে একমাত্র তাক্বওয়া। তিনি বলেন, আহলেহাদীছ আন্দোলন তাক্বওয়াভিত্তিক সমাজ গঠনে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি সকলকে এই দাওয়াতী কাফেলায় শামিল হয়ে দ্বীনে হক প্রচারে সর্বোচ্চ আত্মনিয়োগ করার আহবান জানান।

কাঞ্চন এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি আবুল হাশেম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য  রাখেন ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিন হাবীব, খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম, ঢাকা যেলা ‘যুবসংঘ’-এর প্রচার সম্পাদক শফীকুল ইসলাম প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাবেক সভাপতি মাওলানা আমানুল্লাহ বিন ইসমাঈল, ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাধারণ সম্পাদক তাসলীম সরকার, অর্থ সম্পাদক কাযী হারূণুর রশীদ, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মুহাম্মাদ ফরীদ মিয়া, নারায়ণগঞ্জ যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি সোহেল আহমাদ। অনুষ্ঠানে শফীকুল ইসলামকে সভাপতি ও ছফিউল্লাহ খানকে সাধারণ সম্পাদক করে নারায়ণগঞ্জ যেলা ‘আন্দোলন’-এর কমিটি গঠন করা হয়। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন কাঞ্চন এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব মুমিন মাষ্টার ও ওমর ফারূক।

অতঃপর আমীরে জামা‘আত স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তি জনাব আব্দুছ ছবূর-এর বাসায় আতিথেয়তা গ্রহণ করেন। সেখান থেকে তিনি ঢাকায় আসেন এবং যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাধারণ সম্পাদক তাসলীম সরকারের বাসায় রাত্রি যাপন করেন।

নয়াবাজার, ঢাকা ১১ জুলাই শুক্রবার : রাজধানীর বংশাল থানাধীন নয়াবাজারে অবস্থিত বায়তুল মামূর আহলেহাদীছ জামে মসজিদে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত জুম‘আর খুৎবা প্রদান করেন। অতঃপর বাদ জুম‘আ থেকে আছর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে তিনি গুরুত্বপূর্ণ প্রশিক্ষণমূলক আলোচনা পেশ করেন।

অত্র মসজিদের মুতাওয়াল্লী ও ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর উপদেষ্টা জনাব আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সুধী সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর উপদেষ্টা ও অত্র মসজিদের খতীব মাওলানা শামসুর রহমান আযাদী ও খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম।

বাদ আছর তিনি বায়তুল মোকাররম মসজিদের দক্ষিণ গেইটে রামাযান উপলক্ষে মাসব্যাপী অনুষ্ঠিত বইমেলায় ‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বুক স্টল’ পরিদর্শনে যান। সেখানে তিনি কিছু সময় অবস্থান করেন। এ সময় বইমেলার বিভিন্ন স্টলের দায়িত্বশীলরা আমীরে জামা‘আতের সাথে সাক্ষাতের জন্য ‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বুক স্টলে’ ভীড় জমান। অতঃপর সেখান থেকে নয়াবাজারস্থ বায়তুল মামূর জামে মসজিদে পুনরায় ফিরে আসেন। বায়তুল মামূর জামে মসজিদে বাদ আছর হতে শুরু হওয়া আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি প্রধান অতিথি হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ প্রদান করেন এবং শ্রোতাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি আলহাজ্জ মুহাম্মাদ আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর উপদেষ্টা মাওলানা শামসুর রহমান আযাদী, সাধারণ সম্পাদক তাসলীম সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিন হাবীব, খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। উল্লেখ্য, মাগরিবের ছালাতের পরও কিছু সময় তিনি উপস্থিত মুছল্লীদের উদ্দেশ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ পেশ করেন।

অতঃপর তিনি মাদারটেক আহলেহাদীছ জামে মসজিদে গমন করেন। সেখানে তারাবীহ ছালাত আদায়ের মাঝখানে উপস্থিত মুছল্লীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য পেশ করেন। অতঃপর মসজিদ কমিটির সদস্য আলহাজ্জ জালালুদ্দীন দেওয়ানের বাসায় গমন করেন এবং সেখানে রাত্রি যাপন করেন।

১২ই জুলাই শনিবার : অদ্য বাদ ফজর মুহতারাম আমীরে জামা‘আত মাদারটেক আহলেহাদীছ জামে মসজিদে সংক্ষিপ্ত দরসে হাদীছ পেশ করেন। অতঃপর সকাল সোয়া ৭-টার ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের বিমান যোগে রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। বিমানে রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সাথে তাঁর সাক্ষাৎ হয়। আমীরে জামা‘আত তাকে মারকায পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানালেন তিনি বিমান থেকে নেমে সকাল ৯-টায় মারকায পরিদর্শনে আসেন। তিনি আল-মারকাযুল ইসলামী আস-সালাফী কমপ্লেক্স, আত-তাহরীক অফিস, আহলেহাদীছ আন্দোলন অফিস এবং মহিলা সালাফিইয়া মাদরাসা পরিদর্শন করেন। উল্লেখ্য যে, আমীরে জামা‘আতকে ঢাকা বিমান বন্দরে বিদায় জানান ঢাকা যেলা ‘আন্দোলন’-এর অর্থ সম্পাদক কাযী হারুনুর রশীদ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জনাব ফরীদ মিয়া।

হাদীছ ফাউন্ডেশন ভবন অবৈধ দখলমুক্ত

কুরআন শিক্ষা, দাওয়াহ সেন্টার ও লাইব্রেরী উদ্বোধন

দীর্ঘ প্রায় এক যুগ ধরে বিরোধী পক্ষের সাথে আইনী লড়াইয়ের পর রাজশাহী মহানগরীর কাজলায় অবস্থিত ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’-এর গবেষণা ও প্রকাশনা সংস্থা ‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’-এর ৫তলা ভবনের দখল পেয়েছেন  ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’-এর মুহতারাম আমীরে জামা‘আত ও ‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিব। ভবনটির দখল বুঝে পাওয়ার পর সেখানে কুরআন শিক্ষা, দাওয়া সেন্টার ও লাইব্রেরী উদ্বোধন উপলক্ষ্যে গত ২৭ জুন শুক্রবার বাদ আছর অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে প্রদত্ত প্রধান অতিথির ভাষণে মুহতারাম আমীরে জামা‘আত দীর্ঘ পথপরিক্রমার পর ভবনটি বুঝে পেয়ে মহান আল্লাহর বারগাহে শুকরিয়া জ্ঞাপন করেন। অতঃপর উপস্থিত সুধী মন্ডলীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান কাজলায় হাদীছ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য ছিল  পার্শ্ববর্তী বিশাল বিদ্যাপীঠের শিক্ষক-গবেষক-ছাত্ররা এখানে এসে পবিত্র কুরআন ও ছহীহ হাদীছ ভিত্তিক গবেষণায় মনোনিবেশ করবেন এবং হক এর আলো সর্বত্র ছড়িয়ে দিবেন। কিন্তু সংগঠন হতে বহিষ্কৃত ও স্বার্থান্বেষীদের ষড়যন্ত্রের কারণে তা বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। এক্ষণে আমরা আশা করছি যে, এই প্রতিষ্ঠান তার লক্ষ্য পানে এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। তিনি বলেন, যারা অন্যায় ভাবে দীর্ঘ এক যুগ ধরে ভবনটি দখল করে রেখে এর উদ্দেশ্য ব্যাহত করেছে এবং ভবনটির অপব্যবহার করেছে, এমনকি ছালাতের স্থানটিকে পর্যন্ত খেলার ঘরে রূপান্তরিত করেছে তারা উভয়জগতেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। উল্লেখ্য যে, সেখানে এখন থেকে নিয়মিত লাইব্রেরী ও পাঠকক্ষ খোলা থাকবে, প্রতি বুধবার বাদ আছর দাওয়াতী প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে এবং সকল শ্রেণী ও পেশার মানুষের জন্য নিয়মিত কুরআন শিক্ষার ব্যবস্থা থাকবে।

‘হাদীছ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’-এর সচিব অধ্যাপক আব্দুল লতীফ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’-এর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম, আল-মারকাযুল ইসলামী আস-সালাফী নওদাপাড়ার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল খালেক সালাফী, শিক্ষক শামসুল আলম, মোহনপুর উপযেলা ‘আন্দোলন’ এর সভাপতি মাওলানা দুররুল হুদা, কাজলা শাখা ‘যুবসংঘে’র সভাপতি ও রাবি ৪র্থ বর্ষের ছাত্র সজীব ইসলাম চৌধুরী  প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন ‘যুবসংঘ’-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য যে, উক্ত ভবনটি নিয়ে বিগত ২০০৩ সালে এম.এন.জি.আর. ২/২০০৩ নং মামলার উদ্ভব হয়। দীর্ঘ পাঁচ বছর মামলা চলার পর রাজশাহী জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল এবং বিশেষ দায়রা জজ আদলত-২ এর গত ২৩/০৫/২০০৭ তারিখের  ফৌজদারী রিভিশন নং ৭৪/২০০৪ এর আদেশে আমীরে জামা‘আতের পক্ষে রায় হয়। অতঃপর প্রতিপক্ষ আপীল করলে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের ১০/০৫/১০ তারিখের রিভিউ পিটিশন নং ৮৪৪৪/২০০৭ এর আদেশে এবং মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের এ্যপিলেড ডিভিশনের গত ১১/০৭/১৩ ইং তারিখের লিভ টু আপীল নং ৩২৫ এর আদেশে নিম্ন আদালতের আদেশকে বহাল রেখে আমীরে জামা‘আত প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিবকে উক্ত ভবনের মালিক সাব্যস্ত করা হয়।

দেশব্যাপী কর্মী প্রশিক্ষণ ও রামাযানের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা

পবিত্র মাহে রামাযান উপলক্ষ্যে ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’-এর উদ্যোগে দেশব্যাপী কর্মী প্রশিক্ষণ ও রামাযানের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  যেলা ভিত্তিক অনুষ্ঠিত এসব প্রশিক্ষণে কেন্দ্র কর্তৃক নির্ধারিত বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করেন ‘আন্দোলন’-এর মজলিসে আমেলা সদস্যবৃন্দ এবং কেন্দ্র মনোনীত প্রতিনিধিগণ। বিস্তারিত রিপোর্ট নিম্নরূপ :

চট্টগ্রাম ৪ঠা জুলাই শুক্রবার : অদ্য বাদ জুম‘আ চট্টগ্রাম যেলা ‘আন্দোলন’-এর উদ্যোগে যেলার খুলশী থানাধীন ঝাউতলা আহলেহাদীছ জামে মসজিদে সংক্ষিপ্ত প্রশিক্ষণ ও রামাযানের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি ডা. শামীম আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন ও খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম। উল্লেখ্য যে, একই সময় যেলার পতেঙ্গা থানাধীন স্টিল মিল বাজার সংলগ্ন নবনির্মিত বায়তুর রহমান সালাফী জামে মসজিদেও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঝাউতলা মসজিদে জুম‘আর খুৎবা প্রদান করেন ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন ও বায়তুর রহমান জামে মসজিদে খুৎবা দেন অধ্যাপক নূরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ডা. শামীম আহসানকে সভাপতি ও শেখ সাদীকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম যেলা ‘আন্দোলন’-এর কমিটি পুনর্গঠন করা হয় এবং দায়িত্বশীলদের শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়।

কক্সবাজার, ৫ই জুলাই শনিবার : অদ্য বাদ যোহর যেলার সদর থানাধীন বাহারছড়াস্থ যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক জনাব মুজীবুর রহমানের বাসায় এক সংক্ষিপ্ত প্রশিক্ষণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি এডভোকেট শফীউল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন ও খুলনা যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম। অনুষ্ঠান শেষে কক্সবাজার যেলা ‘আন্দোলন’-এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয় এবং দায়িত্বশীলদের শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। কেন্দ্রীয় মেহমানগণ অনুষ্ঠান শেষে যেলা ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি জনাব সাবেরুল ইসলামের বাসায় আতিথেয়তা গ্রহণ করেন এবং রাতের গাড়ী যোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে কক্সবাজার ত্যাগ করেন।

সিরাজগঞ্জ ৫ই জুলাই শুক্রবার : অদ্য বাদ যোহর যেলার সদর থানাধীন জগৎগাতী আহলেহাদীছ জামে মসজিদে এক কর্মী প্রশিক্ষণ ও রামাযানের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি জনাব মুর্তাযার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম ও কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য ড. মুহাম্মাদ আলী।

সিরাজগঞ্জ ১১ জুলাই শুক্রবার : অদ্য বাদ আছর ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’ সিরাজগঞ্জ যেলার উদ্যোগে চরকুড়া (জামতৈল) আহলেহাদীছ জামে মসজিদে এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ শরীফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘যুবসংঘ’-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ মুর্তাযা, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হুসাইন, যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, আব্দুল মতীন, বর্তমান সভাপতি মুহাম্মাদ শরীফুল ইসলাম প্রমুখ।

নওহাটা, রাজশাহী ১২ই জুলাই শনিবার : অদ্য বাদ আছর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ ও ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’ পবা উপযেলার উদ্যোগে নওহাটা গরুরহাট সংলগ্ন মার্কেটে এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী-উত্তর যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ মুস্তাকীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় দফতর ও যুববিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক আমীনুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন রাজশাহী-উত্তর যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক শিহাবুদ্দীন আহমাদ, সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক মুহাম্মাদ শামসুল হুদা ও নামোপাড়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবুবকর ছিদ্দীক প্রমুখ।

মেহেরপুর, ১৫ জুলাই মঙ্গলবার :  অদ্য সকাল ১০-টায় যেলার গাংনী থানাধীন সাহারবাটি আহলেহাদীছ জামে মসজিদে কর্মী প্রশিক্ষণ ও রামাযানের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ মানছূরুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল অধ্যাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম ও ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম, সাংঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশীদ আখতার। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি মুনীরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার আব্দুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক  সা‘দ আহমাদ প্রমুখ।

রাজশাহী-দক্ষিণ ১৭ জুলাই বৃহস্পতিবার : অদ্য বাদ আছর যেলার বাগমারা থানাধীন তাহেরপুর হাইস্কুল সংলগ্ন জামে মসজিদে ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ ও ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’ রাজশাহী-দক্ষিণ যেলার উদ্যোগে এক কর্মী প্রশিক্ষণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর সহ-সভাপতি  জনাব আইয়ূব আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী-উত্তর যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক শিহাবুদ্দীন আহমাদ। অন্যান্যের মধ্যে আলোচনা করেন যেলা ‘যুবসংঘ’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ মুস্তাকীম, সহ-সভাপতি মুহাম্মাদ যিল্লুর রহমান, ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় পরিষদ সদস্য জনাব সুলতান মাহমূদ, হাটগাঙ্গোপাড়া এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মুহাম্মাদ ছানাউল্লাহ, হাটগাঙ্গোপাড়া ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক অধ্যাপক আতাউর রহমান, মাওলানা মীযানুর রহমান, আলমগীর হোসাইন ও আব্দুল বাকী প্রমুখ।

নওদাপাড়া, রাজশাহী ১৮ই জুলাই শুক্রবার : অদ্য বাদ আছর ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ’ রাজশাহী মহানগরীর উদ্যোগে দারুল হাদীছ বিশ্ববিদ্যালয় (প্রাঃ) জামে মসজিদের এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মহানগর ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি অধ্যাপক গিয়াছুদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় গবেষণা ও প্রকাশনা সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল লতীফ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় দফতর ও যুববিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক আমীনুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ সাখাওয়াত হোসাইন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম, আল-মারকাযুল ইসলামী আস-সালাফী নওদাপাড়া, রাজশাহীর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল খালেক সালাফী, মোহনপুর এলাকা ‘আন্দোলন’-এর সভাপতি মাওলানা দুর্রুল হুদা প্রমুখ।

সাহাপুর, পবা, রাজশাহী ১৮ জুলাই শুক্রবার :  অদ্য বাদ জুম‘আ যেলার পবা থানাধীন সাহাপুর আহলেহাদীছ জামে মসজিদে পবিত্র মাহে রামাযান উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেলা ‘আন্দোলন’-এর দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ ছালাহুদ্দীন পলাশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘আন্দোলন’-এর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক ড. মুহাম্মাদ কাবীরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ‘বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ’-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন রাজশাহী-উত্তর যেলা ‘আন্দোলন’-এর সাংগঠনিক সম্পাদক শিহাবুদ্দীন আহমাদ, সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক মুহাম্মাদ শামসুল হুদা এবং রাজশাহী মহানগর ‘আন্দোলন’-এর প্রচার সম্পাদক মাওলানা আবুবকর ছিদ্দীক প্রমুখ।